জুরাইন স্কুলে কিশোরীকে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

ঢাকা,০৫ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):

রাজধানীর কদমতলীর পূর্ব জুরাইন উচ্চবিদ্যালয়ে এক কিশোরীকে (১৫) আটকে রেখে গণধর্ষণ করা হয়েছে। কিশোরীর অভিযোগ, প্রেমের ফাঁদে ফেলে তাকে ডেকে এনে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়। ২৯ এপ্রিল পূর্ব জুরাইন উচ্চবিদ্যালয়ের একটি কক্ষে নিয়ে ৮ জন মিলে তাকে ধর্ষণ করে। সে সূত্রাপুর এলাকায় থাকে। মাঝে মাঝে পূর্ব জুরাইনে তার বোনের বাসায় আসত। ওই সময় শাওন নামে একজনের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। ধর্ষণের ঘটনায় ১ মে কদমতলী থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ওই স্কুলের দারোয়ান স্বপনকে গ্রেপ্তার করে। সে ঘটনার কথা স্বীকার করেছে।

এদিকে মামলার পর ওই কিশোরীকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মামলার বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, শাওন নামে জুরাইনের এক ছেলের সঙ্গে স্কুলছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। পরে শাওন ফোন করে পূর্ব জুরাইন এলাকায় নিয়ে আসে। পরে দারোয়ানের সহায়তায় পূর্ব জুরাইন উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে আটকে রেখে তাকে ধর্ষণ করা হয়।

ওই মামলায় শাওন ছাড়াও মুন্না, জলিল, বিশাল, স্বপন, মাসুম, মজিদ, তানজিল ওরফে তাজুকে আসামি করা হয়েছে। কদমতলী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ আলী বলেন, মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।