‘মূল্যবোধ রক্ষায়’ ঢেকে দেওয়া হলো ভাস্কর্যের বুকের অংশ

0
35

ঢাকা , ২৬ মার্চ , (ডেইলি টাইমস২৪):

বিশ্বের সবচেয়ে বড় মুসলিম দেশ ইন্দোনেশিয়ার একটি পার্কে দুটি ভাস্কর্যের বুকের অংশ ঢেকে দেওয়া হয়েছে ‘মূল্যবোধের’ কথা বলে। যার সমালোচনা করেছেন শিল্পী।

রাজধানী জাকার্তার অ্যাঙ্কোল ড্রিমল্যান্ডে দুটি মৎস্যকন্যার ভাস্কর্যে উন্মুক্ত স্তন সোনালি আবরণে ঢেকে দেওয়া হয়েছে। এই ভাস্কর্য সেখানে রয়েছে ১৫ বছর ধরে।

বিবিসি বলছে, হঠাৎ ভাস্কর্যের এই চেহারা দেখে বিস্মিত হয়েছেন অনেকে। পার্ক কর্তৃপক্ষকে এটা করতে বাধ্য করা হয়েছে কি না সে প্রশ্নও উঠেছে।

তবে পার্ক কর্তৃপক্ষ বলেছে, ভাস্কর্য ঢেকে দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত তারা গতবছরই নিয়েছিলেন।

পার্কের মুখপাত্র রিকা লেস্টারি বিবিসিকে বলেন, “এটা একান্তই ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের বিষয়, এখানে বাইরের কোনো চাপ নেই।

“পরিবারের সবার জন্য একটি বিনোদনকমূলক পার্কে রূপান্তরের প্রক্রিয়ায় আছি আমরা।”

তাদের এই পদক্ষেপের সমালোচনা এর ভাস্কর ডোলোরোসা সিনাগা বলেন, ইন্দোনেশীয় পার্কটি মানুষকে ‘শিল্পকর্মের সৌন্দর্য’ থেকে বঞ্চিত করছে।

“তারা যেটা করেছে, সাধারণ মানুষের জন্য শিল্পকর্ম উপভোগের সুযোগ বন্ধ করেছে।”

ভাস্কর্য ঢাকা দেখে বিস্ময় প্রকাশ করে নান্দা জুলিন্ডা বলেন, “ভাস্কর্যগুলো তো আমাদের সমস্যা করছিল না। কোনো শিল্পকর্ম এভাবে দেখাটা বিরক্তিকর।”

এম তৌফিক ফিকি নামের একজন বলেন, “সাগরের পাড়ে এই পার্ক এবং ভাস্কর্যগুলো মৎস্যকন্যার। আপনি নিশ্চয়ই কাপড়ে ঢাকা এ রকম মৎস্যকন্যা দেখতে চাইবেন না।”

ভাস্কর্য ঢেকে দেওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। ২০১৬ সালে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির ইতালি সফরের সময় নগ্ন ভাস্কর্যগুলো ঢেকে দেওয়া হয়।